আইপিএল খেলতে চান সাকিব-মোস্তাফিজ , ইতিবাচক বিসিবি

23

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ ক্রিকেটের বাকি অংশে খেলার জন্য বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের কাছে আনুষ্ঠানিক চিঠি দিয়েছেন সাকিব আল হাসান ও মোস্তাফিজুর রহমান। তাদের অনুমতি দেয়ার ব্যাপারে ইতিবাচক অবস্থানেই রয়েছে বোর্ড। এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হবে বুধবার (১ সেপ্টেম্বর)।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে গত মে মাসে মাঝপথে স্থগিত করা হয়েছিল ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) ক্রিকেটের ২০২১ সালের আসর। সব দিক বিবেচনা করে ভারতের বদলে আরব আমিরাতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে টুর্নামেন্টের বাকি ৩১ ম্যাচ, যা শুরু হবে ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে।

আইপিএল স্থগিত হওয়ার সময় বাংলাদেশ দলের দুই ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান ও মোস্তাফিজুর রহমানের বাকি অংশে খেলা অনিশ্চিত হয়ে পড়েছিল। কেননা জুন থেকে টানা জিম্বাবুয়ে, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে খেলার সূচি ছিল বাংলাদেশ দলের।

এর মধ্যে প্রথম তিনটি সিরিজের কোনো নড়চড় হয়নি। তিন ওয়ানডে ও তিন টি-টোয়েন্টির বাংলাদেশ সফরটি পিছিয়ে দিয়েছে ইংল্যান্ড। প্রায় ১৮ মাস পর ২০২৩ সালের মার্চে বাংলাদেশে আসবে তারা। এতেই খুলে গেছে সাকিব ও মোস্তাফিজের আইপিএল খেলার পথ।

আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ভেন্যু আরব আমিরাতেই হতে যাওয়া আইপিএলের বাকি অংশে খেলার সুযোগ লুফে নিতে চাইছেন সাকিব-মোস্তাফিজ। তাদের বোর্ডে আনুষ্ঠানিক চিঠি দেয়ার কথা জানিয়েছেন বিসিবির ক্রিকেট অপারেশনস কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান।

আজ (রোববার) মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে আলাপে আকরাম বলেন, ‘মোস্তাফিজেরটা কিছুদিন আগেই পেয়েছিলাম এবং সাকিব গতকাল চিঠি দিয়েছে। আমরা ১ তারিখ সিদ্ধান্ত নেবো।’

উল্লেখ্য, ১ সেপ্টেম্বর বোর্ডের সাধারণ সভা। এসময় আইপিএলে খেলার সুফলের কথা জানিয়ে আকরাম আরও বলেন, ‘এটা বাংলাদেশ দলের জন্য অনেক ভালো একটা সুযোগ। আমাদের খেলোয়াড়রা আইপিএলের মতো উঁচু মানের একটা টুর্নামেন্টে যদি ওরা খেলে, ভালো পারফর্ম যদি করে… ওই কন্ডিশনে আমরা খেলবো, দল অনেক উপকৃত হবে।’

সাকিব-মোস্তাফিজের চিঠির বিপরীতে বোর্ডের বর্তমান অবস্থান জানিয়ে ক্রিকেট অপারেশনসের চেয়ারম্যান বলেছেন, ‘ওদের পারফরম্যান্সটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। আল্লাহ্‌র রহমতে বোর্ড ইতিবাচক আছে। মনে হয় যে, কোনোরকম সমস্যা হবে না।’