আরও প্রায় ২৫ লাখ শনাক্ত, সংক্রমণ ছাড়ালো ৩০ কোটি

10

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে ছয় হাজার ৮৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ২৪ লাখ ৯৭ হাজার ১৫৪ জন। এছাড়া সুস্থ হয়ে উঠেছেন ছয় লাখ ৮৯ হাজার ৬৮৫ জন।

এ নিয়ে মহামারি শুরুর পর থেকে বিশ্বে মোট মৃত্যু বেড়ে ৫৪ লাখ ৮৯ হাজার ৫০৬ জন। এছাড়া সংক্রমণ বেড়ে ৩০ কোটি ছয় লাখ ৮৮ হাজার ৩৪৪ জনে। এছাড়া মোট সুস্থ হয়েছেন ২৫ কোটি ৭৪ লাখ ৮৫ হাজার ১৭ জন।

শুক্রবার (৭ জানুয়ারি) সকালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে পাওয়া সর্বশেষ এ তথ্য পাওয়া যায়।

গত ২৪ ঘণ্টায় যুক্তরাষ্ট্রে সাত লাখ ৫১ হাজার ৫১২ জন আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন দুই হাজার ১৪৩ জন। করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এ দেশটিতে এ পর্যন্ত পাঁচ কোটি ৯৫ লাখ ৬৪ হাজার ১১৬ জন আক্রান্ত এবং মারা গেছেন আট লাখ ৫৫ হাজার ৮৪৩ জন।

রাশিয়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৮০২ জন এবং নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১৫ হাজার ৩১৬ জন। এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত এক কোটি ছয় লাখ এক হাজার ৩০০ জন এবং মোট মারা গেছেন তিন লাখ ১৩ হাজার ৮১৭ জন।

যুক্তরাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত এক লাখ ৭৯ হাজার ৭৫৬ জন এবং মারা গেছেন ২৩১ জন। দেশটিতে এ পর্যন্ত এক কোটি ৪০ লাখ ১৫ হাজার ৬৫ জন আক্রান্ত এবং মোট মৃত্যু হয়েছে এক লাখ ৪৯ হাজার ৫১৫ জনের। একই সময়ে ইতালিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে এক লাখ ৩৮ হাজার ৪৭৪ জন এবং মারা গেছেন ১৯৮ জন।

ফ্রান্সে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন দুই লাখ ৬১ হাজার ৪৮১ জন এবং মারা গেছেন ২০৪ জন। এ পর্যন্ত ফ্রান্সে মোট এক কোটি ১১ লাখ ৮৩ হাজার ২৩৮ জন আক্রান্ত এবং মারা গেছেন এক লাখ ২৫ হাজার ১৩ জন।

ইউরোপের আরেক দেশ জার্মানিতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫৬ হাজার ৭৮৭ জন এবং মারা গেছেন ৩০৫ জন। দেশটিতে এ পর্যন্ত ৭৩ লাখ ৯৯ হাজার তিনজন করোনায় আক্রান্ত এবং এক লাখ ১৪ হাজার ২০৭ জন মারা গেছেন।

আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১৭১ জন এবং নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৪৪ হাজার ২১৮ জন। অন্যদিকে মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দুই কোটি ২৩ লাখ ৯৫ হাজার ৩২২ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৬ লাখ ১৯ হাজার ৭৩০ জনের।

আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যার তালিকায় তৃতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে এ পর্যন্ত মোট আক্রান্ত তিন কোটি ৫২ লাখ ২২ হাজার ৭৭০ জন এবং মারা গেছেন ৪ লাখ ৮২ হাজার ৯১১ জন।