একদিনে সাড়ে ১৮ লাখ শনাক্ত, ৩৩০৬ জনের মৃত্যু

6

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বজুড়ে আরও ৩ হাজার ৩০৬ জন মারা গেছেন। একই সময়ে নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ১৮ লাখ ৫১ হাজার ৮৯৪ জন। এছাড়া সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৫ লাখ ৪৫ হাজার ৬২ জন।

এ নিয়ে মহামারি শুরুর পর থেকে বিশ্বে মোট মৃত্যু বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫৫ লাখ ৫ হাজার ৮৩৯ জন। আর সংক্রমণ বেড়ে দাঁড়ালো ৩০ কোটি ৭৮ লাখ ৬৯ হাজার ৪৬ জনে। এছাড়া মোট সুস্থ হয়েছেন ২৫ কোটি ৯৫ লাখ ২৭ হাজার ৬০২ জন।

সোমবার (১০ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ৮টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় শীর্ষে থাকা যুক্তরাষ্ট্রে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৮৩ হাজার ৮১ জন। মারা গেছেন ৩০৮ জন। করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এ দেশটিতে এ পর্যন্ত ৬ কোটি ১২ লাখ ৬৩ হাজার ৩০ জন আক্রান্ত হয়েছেন। তার মধ্যে মারা গেছেন ৮ লাখ ৫৯ হাজার ৩৫৬ জন।

দৈনিক সংক্রমণের হিসাবে যুক্তরাষ্ট্রের পরই রয়েছে ফ্রান্স। দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হয়েছেন ২ লাখ ৯৬ হাজার ৯৭ জন করোনা রোগী। একই সময়ে মারা গেছেন ৯০ জন। ফ্রান্সে এ পর্যন্ত ১ লাখ ২৫ হাজার ৪৩৮ জনের মৃত্যু এবং এক কোটি ২১ লাখ ১১ হাজার ২১৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন। সুস্থ হয়েছেন ৮৫ লাখ ১৫ হাজার ৪৮৬ জন।

রাশিয়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৭৬৩ জন এবং নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১৬ হাজার ২৪৬ জন। এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত ১ কোটি ৬ লাখ ৫০ হাজার ৮৪৯ জন। তাদের মধ্যে মারা গেছেন তিন লাখ ১৬ হাজার ১৬৩ জন। আর সুস্থ হয়েছেন ৯৬ লাখ ৮৬ হাজার ৯১২ জন।

যুক্তরাজ্যে একদিনে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এক লাখ ৪১ হাজার ৪৭২ জন এবং মারা গেছেন ৯৭ জন। দেশটিতে এ পর্যন্ত এক কোটি ৪৪ লাখ ৭৫ হাজার ১৯২ জন আক্রান্ত এবং মারা গেছেন এক লাখ ৫০ হাজার ১৫৪ জন। একই সময়ে ইতালিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন এক লাখ ৫৫ হাজার ৬৫৯ জন এবং মারা গেছেন ১৫৭ জন।

তুরস্কে সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৬১ হাজার ৭২৭ জন। একই সময়ে মারা গেছেন ১৭৩ জন। এ নিয়ে দেশটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮৩ হাজার ৭০২ জনে এবং শনাক্ত বেড়ে দাঁড়ালো ৯৯ লাখ ৭৮ হাজার ৪৫২ জনে।

জার্মানিতে একদিনে মারা গেছেন ৬০ জন এবং শনাক্ত হয়েছেন ৩০ হাজার ৮১২ জন। দেশটিতে এ পর্যন্ত ৭৫ লাখ ৩১ হাজার ৬৩০ জন করোনায় আক্রান্ত এবং এক লাখ ১৪ হাজার ৭১২ জন মারা গেছেন।

আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ব্রাজিলে ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৫০ জন। নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ২৪ হাজার ৩৮২ জন। দেশটিতে এ পর্যন্ত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দুই কোটি ২৫ লাখ ২৩ হাজার ৯০৭ জন। তাদের মধ্যে মারা গেছেন ৬ লাখ ২০ হাজার ৩১ জন।

আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যার তালিকায় তৃতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে ২৪ ঘণ্টায় ১ লাখ ৮০ হাজার ৪৩৮ জন শনাক্ত হয়েছেন। এ পর্যন্ত মোট আক্রান্ত তিন কোটি ৫৭ লাখ ৮ হাজার ৪৪২ জন এবং মারা গেছেন ৪ লাখ ৮৩ হাজার ৭৯০ জন।

এদিকে দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। সারাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে ১ জন পুরুষ ও ২ জন নারী। ৩ জনই সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এ নিয়ে দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৮ হাজার ১০২ জনে।

একই সময়ে নতুন রোগী হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ১ হাজার ৪৯১ জন। এ নিয়ে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ১৫ লাখ ৯৩ হাজার ৭০০ জনে।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহান প্রদেশের হুবেই শহরে প্রথম করোনার অস্তিত্ব শনাক্ত হয়। কয়েক মাসের মধ্যেই ভাইরাসটি বিশ্বের অধিকাংশ দেশে ছড়িয়ে পড়ে। গত বছরের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করোনাকে ‘বৈশ্বিক মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করে।