২৫ কোটি ভ্যাকসিন কেনা হয়েছে, সবাইকে দেওয়া হবে : প্রধানমন্ত্রী

34

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এখন পর্যন্ত দেশের ৮ থেকে ৯ কোটি মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। এরই মধ্যে ২৫ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন কেনা হয়েছে। ভ্যাকসিন নিয়ে আমাদের কোনো অসুবিধা হবে না। কেউ ভ্যাকসিন থেকে বাদ যাবে না।

বুধবার (১৭ নভেম্বর) প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন গণভবনে যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্স সফর নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ভ্যাকসিন অনেক দাম দিয়ে কিনতে হয়। অনেক দাম দিয়ে ২৫ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন কিনেছি। শুধু করোনার টেস্ট বাবদ খরচ হয় ১২ থেকে ১৫ হাজার টাকা। ইতোমধ্যে ৮-৯ কোটি মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে সাড়ে ৪ কোটি মানুষকে ডাবল ডোজ ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। বাকিদের প্রথম ডোজ দেওয়া হয়েছে। পেশাজীবী, শ্রমিক, শিক্ষক-শিক্ষার্থী সবাইকে টিকা দেওয়া হচ্ছে। কেউ ভ্যাকসিন থেকে বাদ যাবে না।

আরেক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমার ফুফাতো ভাই ফিরোজ কবীরসহ ১৯৭৭ সালে সেনা সদস্য ও অনেক সাধারণ মানুষকে হত্যা করা হয়েছে। এই হত্যাকাণ্ডে জিয়াউর রহমান নিজেই জড়িত। আমরা হত্যাকাণ্ডের বিচারের উদ্যোগ নেব।

তিনি বলেন, ১৯৭৭ সালে নির্বিচারে হত্যাকাণ্ডের শিকার সেনা সদস্যদের পরিবারগুলো অসহায়ভাবে দিন কাটাচ্ছে। আমার সঙ্গে অনেক পরিবারের কথা হয়েছে। আমি তাদের তথ্য জানি। এতদিন পর হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের বিচার চাওয়া হয়েছে। আমি হত্যাকাণ্ডের বিচারের উদ্যোগ নেব।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ১৯৭৭ সালে যাদের জেলখানায় ফাঁসি দেওয়া হয়েছে। তাদের তালিকা হয়ত পাওয়া যাবে। কিন্তু সেনা আইনে যেসব সেনা সদস্যদের শাস্তি কিংবা ফাঁসি দেওয়া হয়েছে তার তালিকা পাওয়া যাবে কি না, তা জানি না। তবে আমরা এ ঘটনার বিচার করব।

প্রধানমন্ত্রী ৩১ অক্টোবর থেকে ১৩ নভেম্বর পর্যন্ত গ্লাসগো, লন্ডন ও প্যারিস সফর করেন। সফরকালে তিনি কপ২৬ সম্মেলন, বাংলাদেশ বিনিয়োগ শীর্ষ সম্মেলন ২০২১, ইউনেস্কো সদর দফতরে সৃজনশীল অর্থনীতির জন্য ইউনেস্কো-বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আন্তর্জাতিক পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান, ইউনেস্কোর ৪১তম সাধারণ সম্মেলন, প্যারিস শান্তি ফোরাম, ইউনেস্কোর ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী এবং অন্যান্য উচ্চ পর্যায়ের অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

প্রায় দুই সপ্তাহের সফর শেষে গত ১৪ নভেম্বর দেশে ফেরেন প্রধানমন্ত্রী। ওই সফর নিয়েই আজকের এ সংবাদ সম্মেলন।