করোনায় মৃত ১৮ জনের ১৪ জনই ঢাকার

115

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মারা গেছেন ১৮ জন। এদের মধ্যে ১৪ জনই ঢাকা বিভাগের বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।

রবিবার (১ নভেম্বর) করোনা বিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে স্বাস্থ্য অধিদফতর এ তথ্য জানিয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনায় মারা যাওয়া ১৮ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের ১৪ জন, বাকি চার জনের মধ্যে তিন জন চট্টগ্রামের, আর একজন সিলেট বিভাগের।

গত ২৪ ঘণ্টায় বাকি পাঁচ বিভাগ অর্থাৎ রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে কেউ মারা যাননি।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনা বিষয়ক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, দেশে করোনায় এ পর্যন্ত মোট মারা যাওয়া পাঁচ হাজার ৯৪১ জনের মধ্যে এখন পর্যন্ত ঢাকা বিভাগে মারা গেছেন  তিন হাজার ৯৩ জন, যা ৫২ দশমিক শূন্য ছয় শতাংশ।

এরপরই রয়েছে চট্টগ্রাম বিভাগ। এই বিভাগে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন এক হাজার ১৭৬ জন, যা ১৯ দশমিক ৭৯ শতাংশ, রাজশাহী বিভাগে ৩৭১ জন, ছয় দশমিক ২৪ শতাংশ, খুলনা বিভাগে মারা গেছেন ৪৭০ জন, সাত দশমিক ৯১ শতাংশ, বরিশাল বিভাগে মারা গেছেন ২০০ জন, তিন দশমিক ৩৭ শতাংশ, সিলেট বিভাগে মারা যান ২৪৭ জন, চার দশমিক ১৬ শতাংশ, রংপুর বিভাগে ২৬২ জন মারা গেছেন, চার দশমিক ৪১ শতাংশ এবং ময়মনসিংহ বিভাগে মারা গেছেন ১২২ জন, দুই দশমিক শূন্য পাঁচ শতাংশ।

অপরদিকে, যাদের বয়স ৬০ বছরের বেশি তাদের মৃত্যু হার বেশি। মোট পাঁচ হাজার ৯৪১ জনের মধ্যে ষাটোর্ধ্ব বয়সের মারা গেছেন তিন হাজার ৯৫ জন, ৫২ দশমিক ১০ শতাংশ। এরপর রয়েছে ৫১ থেকে ৬০ বছর বয়সীরা। এ বয়সের মৃত্যু সংখ্যা এক হাজার ৫৭২ জন, অর্থাৎ ২৬ দশমিক ৪৬ শতাংশ। ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৭৩৬ জনের, ১২ দশমিক ৩৯ শতাংশ, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে মারা গেছেন ৩২৬ জন, পাঁচ দশমিক ৫০ শতাংশ। ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে করোনায় মৃত্যু সংখ্যা ১৩৬ জন, দুই দশমিক ২৯ শতাংশ। ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে ৪৬ জন মারা গেছেন, শূন্য দশমিক ৭৭ শতাংশ এবং শূন্য থেকে ১০ বছরের মধ্যে মৃত্যুর সংখ্যা ২৯ জন, অর্থাৎ শূন্য দশমিক ৪৯ শতাংশ।