কাউন্সিলর চিত্তরঞ্জনের আপত্তিকর ভিডিও ভাইরাল : থানায় নারীর মামলা

74

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও সবুজবাগ থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক চিত্ত রঞ্জন দাসের আপত্তিকর ভিডিও ফাঁস হয়েছে।  ফেসবুকে ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর ভুক্তভোগী ওই নারী থানায় চিত্ত রঞ্জন দাসের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন।

শনিবার (১১ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় সবুজবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মু. মুরাদুল ইসলাম মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ওসি জানান, ফেসবুকে একটি আপত্তিকর ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর ভুক্তভোগী নারী থানায় এসে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর চিত্ত রঞ্জন দাসের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেছেন।

এ বিষয়ে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলেও জানান ওসি।

ওই ভিডিওতে দেখা যায়, এক তরুণীকে নিজের দিকে ডাকছেন চিত্ত রঞ্জন দাস। ওই তরুণীকে কাছে টেনে বারবার তাকে জড়িয়ে ধরে আপত্তিকর জায়গায় হাতও দিচ্ছেন।

সংক্ষিপ্ত ওই ভিডিও নিয়ে এরইমধ্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিভিন্ন মুখরোচক আলোচনার তৈরি হয়েছে।

এ বিষয়ে চিত্ত রঞ্জন দাস বলেন, ‘ স্থানীয় সগীর উদ্দিন সরদার গং উদ্দেশ্য প্রনোদিতভাবে আমাকে ফাঁসিয়েছে। একটি দোকান নিয়ে তার সঙ্গে ঝামেলা ছিল। তাই এই ভিডিওটি তার ছেলের বউকে দিয়ে ধারণ করে আমাকে সমাজে হেয় করার চেষ্টা করেছে। অথচ আমি ওই নারীর সঙ্গে নাটকের রিহার্সেল করেছি মাত্র। এটি মূলত একটি নাটকের দৃশ্য। যা আমার এলাকার বরদেশ্বরী মন্দিরে চিত্রায়িত। ভিডিওটি খেয়াল করলেই বুঝবেন।’

এদিকে শুক্রবার রাতে আওয়ামী লীগ নেতা চিত্ত রঞ্জন দাসের আপত্তিকর ভিডিও ফাঁস হওয়ার পর থেকে দলীয় নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষ তীব্র ক্ষোভ ও নিন্দা প্রকাশ করেছেন।