কাবুল বিমানবন্দরে ফের হামলার আশঙ্কা বাইডেনের

7

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের বিমানবন্দরে ফের হামলার ব্যাপারে উচ্চ আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তিনি বলছেন, রোববার এই হামলা হতে পারে বলে মার্কিন সামরিক বাহিনীর কমান্ডাররা তাকে জানিয়েছেন।

রোববার (২৯ আগস্ট) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি। প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, কাবুল বিমানবন্দরে ফের হামলার ব্যাপারে ‘নির্দিষ্ট ও বিশ্বাসযোগ্য হুমকির’ কারণে আফগান ভূখণ্ডে অবস্থানরত সকল মার্কিন নাগরিককে হামিদ কারজাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ও সংশ্লিষ্ট এলাকা ত্যাগ করতে বলেছে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

কাবুল বিমানবন্দরে ফের হামলার হুমকিসহ দেশটির মাঠের পরিস্থিতি খুবই বিপজ্জনক বলে বর্ণনা করেছেন জো বাইডেন। হোয়াইট হাউস থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘আফগান ভূখণ্ডের পরিস্থিতি সত্যিই বিপজ্জনক। কাবুল বিমানবন্দরে সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কা এখনও অনেক বেশি। মার্কিন সামরিক বাহিনীর কমান্ডাররা আমাকে জানিয়েছেন যে, আগামী ২৪ থেকে ৩৬ ঘণ্টার মধ্যে সেখানে (কাবুল বিমানবন্দরে) ফের হামলার উচ্চ ঝুঁকি রয়েছে।’

তালেবান আফগানিস্তানের শাসনক্ষমতা দখলের পর এখনও প্রত্যাহার প্রক্রিয়া চালিয়ে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। তবে যুক্তরাজ্যের সকল সেনা, কূটনীতিক ও কর্মকর্তারা ইতোমধ্যেই কাবুল ছেড়ে গেছেন।

গত বৃহস্পতিবার কাবুল বিমানবন্দরে বোমা হামলায় কমপক্ষে ১৭০ জন নিহত হয়। জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) এই হামলার দায় স্বীকার করেছে। জবাবে আফগানিস্তানের পূর্বাঞ্চলে আইএস জঙ্গিদের ওপর ড্রোন হামলা করে যুক্তরাষ্ট্র। এতে দু’জন নিহত হয়। নিহত ওই দু’জনকে কাবুল বিমানবন্দরে হামলার পরিকল্পনাকারী বলে উল্লেখ করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

শনিবার এক বিবৃতিতে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেন, ‘এই ড্রোন হামলা এটাই শেষ নয়। (কাবুল বিমানবন্দরে) হামলার মতো জঘন্য হামলাকারীদের তল্লাশি আমরা অব্যাহত রাখবো এবং তাদেরকে অবশ্যই চড়া মূল্য দিতে হবে।’