ট্রাম্পের ভেটো প্রত্যাখ্যান করে সিনেটে প্রতিরক্ষা বিল পাস

75

আবারও বড় ধরনের ধাক্কা খেলেন বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সম্প্রতি তিনি একটি প্রতিরক্ষা ব্যয় বিলে ভেটো দিয়েছিলেন। কিন্তু তার এই সিদ্ধান্তকে প্রত্যাখ্যান করে সিনেটে প্রতিরক্ষা বিলটি পাস হয়েছে।

প্রেসিডেন্ট হিসেবে ট্রাম্পের সঙ্গে এমন ঘটনা এই প্রথম ঘটল যখন তার দলের রিপাবলিকান সদস্যরাও তার মতামতকে অগ্রাহ্য করল। রয়টার্সের এক প্রতিবেদন অনুযায়ী, এর আগে আরও আটবার বেশ কয়েকটি বিলে ভেটো দিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। প্রত্যেকবারই তার সিদ্ধান্তই মেনে নেওয়া হয়েছে।

কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সিনেটের নিয়ন্ত্রণ রিপাবলিকানদের হাতে। সে হিসেবে যে কোনো বিষয়ে ট্রাম্পের সিদ্ধান্তই মেনে নেওয়ার কথা। এতদিন পর্যন্ত অন্তত তাই হয়ে এসেছে। কিন্তু এবার পুরোপুরি তার ব্যতিক্রম ঘটল।

নিউ ইয়ারের দিনে সিনেটে বিরল এক অধিবেশনের পর ভোটাভুটিতে ৮১-১৩ ভোটে ৭৪ হাজার কোটি মার্কিন ডলারের প্রতিরক্ষা ব্যয় বিলটি পাস হয়েছে। ‘ন্যাশনাল ডিফেন্স অথরাইজেশন অ্যাক্ট’ (এনডিএএ) বিলে গত বুধবার ভেটো দিয়েছিলেন ট্রাম্প। কিন্তু যে কোনো বিল নিয়ে প্রেসিডেন্টের ভেটো অগ্রাহ্য করতে হলে বিলটিকে অবশ্যই কংগ্রেসের উভয়কক্ষে দুই-তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে হবে।

এনডিএএ আগেই ডেমোক্র্যাট নিয়ন্ত্রিত নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদে প্রেসিডেন্টের ভেটোর বিরুদ্ধে দুই-তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠতায় অনুমোদন পেয়েছে বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। শুক্রবার প্রতিরক্ষা বিল নিয়ে বিতর্ক শুরুর আগেই সিনেটের রিপাবলিকান নেতা মিচ ম্যাককনল বলেন, তিনি ওই বিল পাস করাতে বদ্ধপরিকর।

তিনি বলেন, আমরা টানা ৫৯ বছর এই আইন পাস করেছি। এখন এভাবে হোক বা অন্যভাবে, আমরা ৬০তম বার্ষিক এনডিএএ সম্পন্ন করতে যাচ্ছি এবং আগামী রোববার কংগ্রেসের অধিবেশন বাতিল হওয়ার আগেই একে আইনে পরিণত করতে যাচ্ছি।

তিনি আরও বলেন, বার্ষিক প্রতিরক্ষা আইন প্রণয়নের মাধ্যমে আমাদের সেসব সাহসী নারী ও পুরুষদের সুরক্ষা দিতে হবে যারা ইউনিফর্ম পরে স্বেচ্ছায় আমাদের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন।

এদিকে ট্রাম্পের ভেটো দেওয়ার ঘটনাকে বেপরোয়া আচরণ বলে উল্লেখ করেছেন প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি। তিনি বলেন, এই বিলে ভেটো দেওয়া মানে আমাদের সেনাবাহিনীর ক্ষতি করা। এটা আমাদের নিরাপত্তাকে ঝুঁকির মুখে ঠেলে দিবে এবং এটা দ্বিপক্ষীয় কংগ্রেসের ইচ্ছাকে অবজ্ঞা করার সামিল।