ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে জবি শিক্ষিকার মৃত্যু

50

ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ইতিহাস বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাঈদা নাসরিন বাবলি (৩৫) ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি…রাজিউন)।  প্রায় ১৬ দিন ধরে স্কয়ার হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি।

বুধবার (৭ জুলাই) ভোরে ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন বলে জানিয়েছেন তার স্বামী ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার এ বি এম আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার।

বুধবার তার গ্রামের বাড়ি সিরাজগঞ্জের সলঙ্গার কালিপুরে বাদ জোহর প্রথম জানাজা এবং বাদ আসর উল্লাপাড়ার বিজ্ঞান কলেজে অনুষ্ঠিত হবে। এরপর উল্লাপাড়ার ঝিকিড়া কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে।

ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হওয়ার ২০ জুন তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরদিন তাকে আইসিইউতে নেওয়া হয়।

তার মৃত্যু খবরের সত্যতা নিশ্চিত করে জবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. নূরে আলম আবদুল্লাহ ফেসবুক স্ট্যটাসে লিখেন, ‘আমাদের সবাইকে কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে চলে গেলেন প্রিয় বাবলি। কিছুতেই তাকে আমরা ফেরাতে পারলাম না। মহান আল্লাহ বাবলিকে জান্নাতুল ফেরদৌস দান করুন’।

সাঈদা নাসরিন সিরাজগঞ্জের হামিদিয়া পাইলট গার্লস হাইস্কুল থেকে এসএসসি ও উল্লাপাড়া বিজ্ঞান কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগে ভর্তি হন।

রাষ্ট্রপতির স্বর্ণপদক প্রাপ্ত বাবলি ৩২তম বিসিএস পরীক্ষায় প্রথম হন। তবে, তিনি শিক্ষককে পেশা হিসেবে নিয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগে যোগদন করেন।