তিন প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ

44

গুচ্ছ পদ্ধতিতে তিন প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক ১ম বর্ষ/লেভেল-১ এর সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) রাতে এ ফলাফল প্রকাশ করা হয়। ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল তিন প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের সমন্বিত ওয়েবসাইট admissionckruet.ac.bd-এ বিস্তারিত জানা যাবে।

বিশ্ববিদ্যালয় তিনটি হলো- চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট), খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (কুয়েট) এবং রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (রুয়েট)।

এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, এবারের সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষায় সম্মিলিতভাবে ‘ক’ (ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগসমূহ এবং নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ) গ্রুপে মেধাক্রম ১ম থেকে ১৪৯৮৯ পর্যন্ত এবং ‘খ’ (ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগসমূহ, নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ এবং স্থাপত্য বিভাগ) গ্রুপে মেধাক্রম ১-১৬৫৬ পর্যন্ত মেধাতালিকা প্রকাশ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ভর্তির জন্য সবমিলিয়ে চুয়েটে ৯০১টি আসন, কুয়েটে এক হাজার ৬৫টি আসন এবং রুয়েটে এক হাজার ২৩৫টি আসন রয়েছে। সবমিলিয়ে তিন বিশ্ববিদ্যালয়ে রয়েছে তিন হাজার ২০১টি আসন।

গত ১৩ নভেম্বর এ সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ‘ক’ গ্রুপে মোট ২২ হাজার ৬১০ জন এবং ‘খ’ গ্রুপে মোট তিন হাজার ৩৭ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন।

এদিকে আগামী ৫ ডিসেম্বর থেকে স্ব-স্ব বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি কার্যক্রম শুরু হবে। এতে প্রথম পর্যায়ে ‘ক’ গ্রুপে মেধাক্রম ১-৩০৮০ পর্যন্ত এবং ‘খ’ গ্রুপে মেধাক্রম ১-১০০ পর্যন্ত ভর্তিচ্ছু প্রার্থীদের ভর্তির জন্য নিরীক্ষা কমিটির নিকট উপস্থিত হওয়ার জন্য বলা হয়েছে।

ভর্তিচ্ছুকদের করণীয় সম্পর্কে বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে- মেধাস্থান প্রাপ্ত সকল প্রার্থীকে admissionckruet.ac.bd লিংকে প্রবেশ করে ‘Online Admission Form’ এ প্রয়োজনীয় তথ্য পূরণ করতে হবে এবং বিশ্ববিদ্যালয় ও বিভাগের পছন্দক্রম প্রদান করতে হবে। ওই ফরমে দেওয়া তথ্য ও পছন্দক্রম ৪ ডিসেম্বর সকাল ৯টার মধ্যে প্রয়োজনে পরিবর্তন বা সংশোধন করা যাবে। এরপর আর কোনো তথ্য বা পছন্দক্রম পরিবর্তন করা যাবে না। পূরণকৃত ফরম প্রিন্ট করে এক কপি ভর্তির সময়ে নিয়ে আসতে হবে। চুয়েট, কুয়েট এবং রুয়েট কেন্দ্রসমূহে ভর্তি কার্যক্রম একযোগে অনুষ্ঠিত হবে।

বলা হয়েছে, প্রার্থী যে কেন্দ্র থেকে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন ওই কেন্দ্রেই উপস্থিত হয়ে ভর্তির জন্য প্রয়োজনীয় কার্যক্রম সম্পন্ন করবেন। প্রথম পর্যায়ে উপরোল্লিখিত মেধাক্রম, তারিখ ও সময়সূচি অনুযায়ী ভর্তিচ্ছু প্রার্থীদের ভর্তির জন্য নিরীক্ষা কমিটির সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে বলা হয়েছে। নিরীক্ষা কমিটির সনদপত্র যাচাইয়ের পর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হবে। পরদিন যোগ্য প্রার্থীদের ভর্তির জন্য নির্ধারিত ১৮ হাজার ৫০০ টাকা ফি বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্দেশিত ব্যাংকে অথবা অনলাইনে জমা দিতে বলা হয়েছে।