তিন সেঞ্চুরির ম্যাচে সিমি সিংয়ের ইতিহাস

24

জয়ে ফেরার ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার দুই ওপেনার জানেমান মালান ও কুইন্টন ডি কক হাঁকালেন সেঞ্চুরি। আয়ারল্যান্ডের টপ ও মিডল অর্ডারের কেউ লড়াই করতে না পারলেও লেজের ব্যাটসম্যান সিমি সিং ছিলেন অসাধারণ।

আটে নেমে ধ্রুপদী সেঞ্চুরিতে দিয়েছেন জবাব। তাতে ইতিহাসও গড়েছেন। আয়ারল্যান্ড ম্যাচ না জিতলেও সিমি সিংয়ের দৃঢ়তায় লড়াই করেছে। দক্ষিণ আফ্রিকার দেওয়া ৩৪৭ রানের লক্ষ্যে ২৭৬ রানে গুটিয়ে যায় স্বাগতিকরা। দ্বিতীয় ম্যাচ হারের পর ৭০ রানের জয়ে সিরিজে ১-১ ব্যবধানে সমতা ফিরিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

কক ১৬তম সেঞ্চুরি তুলে সাজঘরে ফেরেন ১২০ রানে। তবে মালানকে থামানোর উত্তর জানা ছিল না আইরিশদের। ইনিংসের শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থেকে ১৭৭ রান করেন তিনি। ১৬৯ বলে ১৬ চার ও ৬ ছক্কায় সাজান ইনিংস। ডি কক ৯১ বলে ১১ চার ও ৫ ছক্কায় করেন ১২০ রান। তিনে নামা রাইসি ভন ডার ডুসেন ২৮ বলে ৩০ রান করে শেষ দিকে অবদান রাখেন।

আয়ারল্যান্ডের ব্যাটিং ছিল একপেশে। প্রথম সাত ব্যাটসম্যানের মধ্যে সর্বোচ্চ রান ৫৪। কুর্তস চাম্পারের ব্যাট থেকে আসে সেই রান। আটে নেমে সিমি সিং দলের ব্যাটিং চিত্র পাল্টে দেন। ডানহাতি ব্যাটসম্যান ক্যারিয়ারের প্রথম তুলে নিয়ে গড়েন ইতিহাস। ৯১ বলে ১৪ বাউন্ডারিতে সাজান শতরানের ইনিংস।

১৭৭ রানের নজরকাড়া ইনিংস খেলে ম্যাচসেরার পুরস্কার পেয়েছেন মালান।

সিরিজের প্রথম ম্যাচ বৃষ্টিতে পণ্ড হওয়ার পর দ্বিতীয় ম্যাচে হেরে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। তৃতীয় ম্যাচ জিতে সিরিজে সমতা ফেরায় প্রোটিয়া। দুই দল তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলবে চলতি সপ্তাহে। ১৯ জুলাই ডাবলিনে প্রথম ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। পরের দুইটি ম্যাচ হবে ২২ ও ২৪ জুলাই।