তোফায়েল আহমেদের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল

27

বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ তোফায়েল আহমেদের শারীরিক অবস্থা ‘স্থিতিশীল’ রয়েছে বলে জানা গেছে। ভারতের রাজধানী দিল্লি থেকে প্রায় নয় কিলোমিটার দূরে হরিয়ানার গুরগাঁওয়ে মেদান্ত মাল্টি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি।

সেখানে নিউরোলজি বিভাগের প্রধান ডা. অরুণ গার্গের তত্ত্বাবধানে আছেন তোফায়েল আহমেদ। শুক্রবার (৩ সেপ্টেম্বর) অরুণ গার্গ গণমাধ্যমকে বলেন, ‘তার অবস্থা স্থিতিশীল। আমরা তাকে আরও পর্যবেক্ষণের জন্য আইসিইউতে রেখেছি। দুশ্চিন্তার কিছু নেই, আশা করি আগামীকালের ( আজ ৪ সেপ্টেম্বর) মধ্যে আমরা সবকিছু ঠিকঠাক হলে তাকে কেবিনে পাঠাতে পারবো।’

তিনি তোফায়েল আহমেদের কিছু মেডিক্যাল চেকআপের পরামর্শ দিয়েছেন বলেও জানা গেছে।

এদিকে, নয়াদিল্লিতে বাংলাদেশের হাইকমিশনার মুহাম্মদ ইমরান হাসপাতালে আওয়ামী লীগের প্রবীণ নেতা তোফায়েল আহমেদকে দেখতে যান। তিনি তার চিকিৎসা সম্পর্কে খোঁজখবর নেন।

প্রসঙ্গত, গত ৩০ আগস্ট ‘হালকা স্ট্রোক’ করেন তোফায়েল আহমেদ। পরে তাকে স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়। ৩ সেপ্টেম্বর তাকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে ভারতের রাজধানী দিল্লিতে নিয়ে যাওয়া হয়।

তোফায়েল আহমেদের একান্ত সচিব নুরুল আমিন জাগো নিউজকে বলেন, ‘তিনি ভালো আছেন, নিয়মিত চেকআপের জন্য ভারতে নেয়া হচ্ছে।’

পরিবারের পক্ষ থেকেও বলা হয়েছে, তার অবস্থা স্থিতিশীল। আগে থেকেই বাম হাতে অনুভূতি পাচ্ছিলেন না তিনি। সেই সমস্যাটাই আছে।

উল্লেখ্য, পাঁচবারের জন্য সংসদ সদস্য নির্বাচিত ৭৭ বছর বয়সী রাজনীতিবিদ তোফায়েল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে বেশ কয়েকটি মন্ত্রণালয়ে মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন। বর্তমানে তিনি দলের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য এবং বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি।