দরিদ্রদের প্রথম ডোজের ৬ গুণ বেশি বুস্টার দিয়েছে উন্নতরা

5

করোনাভাইরাস মহামারিতে স্বল্প আয়ের দেশগুলোর প্রথম ধাপের টিকার তুলনায় উন্নত দেশে বুস্টার ডোজ দেওয়ার হার ছয় গুণ বেশি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডাব্লিউএইচও) মহাপরিচালক টেড্রোস আধানম গেব্রিয়েসাস শুক্রবার এ তথ্য জানিয়ে বলেছেন, এই কেলেঙ্কারি এখনই বন্ধ করতে হবে। খবর বিবিসির।

বিবিসির ওই প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, স্বল্প আয়ের দেশগুলো করোনা মহামারির সম্মুখসারির যোদ্ধা ও উচ্চ ঝুঁকির মানুষকে পর্যাপ্ত টিকা দিতে পারছে না। অথচ উন্নত দেশগুলো টিকা মজুদ করছে।

টেড্রোস আধানম ও ডাব্লিউএইচওর অন্যান্য শীর্ষ কর্মকর্তা নিয়মিতভাবে এর সমালোচনা করে আসছেন। চলতি বছরের আগস্ট মাসে টেড্রোস বুস্টার ডোজ প্রদানের বিরুদ্ধে একটি বৈশ্বিক স্থগিতাদেশের আহবান জানিয়েছিলেন।

ডাব্লিউএইচও জানায়, বিশ্বের ৯২টি দেশ টিকার বর্ধিত কর্মসূচি শুরু করেছে। কিন্তু এদের মধ্যে কোনো স্বল্প আয়ের দেশ নেই। বিশ্বে এখন প্রতিদিন দুই কোটি ৮৫ লাখ করোনা প্রতিরোধী টিকা দেওয়া হয়। এর এক-চতুর্থাংশ বুস্টার অথবা অতিরিক্ত ডোজ।

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের আওয়ার ওয়ার্ল্ড ডাটা প্রজেক্ট জানিয়েছে, স্বল্প আয়ের দেশের মাত্র সাড়ে ৪ শতাংশ মানুষ প্রথম ধাপের টিকা পেয়েছেন।