দুই ছবিতে তৃতীয় লিঙ্গের তাসনুভা শিশির

61

মানবাধিকারকর্মী, অভিনেত্রী ও নৃত্যশিল্পী তাসনুভা আনান শিশির। কামাল হোসেন শিশির থেকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নিজেকে তাসনুভা আনানে রূপান্তরিত করেছেন। ১২ বছর ধরে থিয়েটার করছেন তিনি। বর্তমানে বটতলার হয়ে বিভিন্ন প্রযোজনায় কাজ করছেন। প্রথমবারের মতো সাইদ শাহরিয়ারের ‘গোল’ ও অনন্য মানুনের ‘কসাই’য়ে যুক্ত হয়েছেন তিনি। ‘গোল’ ছবিতে আনানকে ফুটবল দলের কোচ হিসেবে দেখা যাবে। চা বাগানের একজন হার না মানা আদিবাসী মেয়ের উঠে আসার গল্প নিয়ে ছবির কাহিনি। তাসনুভা বলেন, ‘গোল-এর শুটিং হবে হবিগঞ্জে, মার্চের শুরুতে। আর কসাই ছবিতে ডিটেকটিভ টিমের টিম অফিসার হিসেবে অভিনয় করব।’ নিজের সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘তৃতীয় লিঙ্গ নিয়ে আমার ঘোর আপত্তি রয়েছে। জেন্ডার বিভাজন বলে কিছু নেই; সবাই মানুষ। আমি একজন মানুষ, পারফরমার। শিল্পীর কোনো জেন্ডার নেই।’ সমাজকর্ম বিষয়ে এমএ শেষ করা তাসনুভা সম্প্রতি ব্রাক জেমস পি গ্রান্ট স্কুলে পাবলিক হেলথ বিষয়ে মাস্টার্সের সুযোগ পেয়েছেন। তিনি দুটি ইন্টারন্যাশনাল ডকু ফিল্মের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। ২০১২ সালে করা ‘প্রীতিলতা’ ছবিটি এখনো আলোর মুখ দেখেনি।
অপরদিকে, আসছে ২০২১ সালের ৮ মার্চ (সোমবার) আন্তর্জাতিক নারী দিবসে এই তাসনুভা আনান শিশির সংবাদ পাঠক হিসেবে বৈশাখী টেলিভিশনে তার প্রথম সংবাদ বুলেটিন উপস্থাপন করবেন। এর মধ্য দিয়ে দেশে এক নজিরবিহীন দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে যাচ্ছে বৈশাখী টেলিভিশন। এরপর থেকে তাসনুভা আনান নিয়মিত সংবাদ পাঠ করবেন।
বৈশাখী টেলিভিশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা দুলাল খান গণমাধ্যমকে বলেন, বৈশাখী টেলিভিশন স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর এই বছর এবং স্বাধীনতার মাস মার্চে নারী দিবস উদযাপনের প্রাক্কালে আমাদের চ্যানেলের সংবাদে এবং নাটকে দুইজন ট্রান্সজেন্ডার নারীকে যুক্ত করেছি। দেশের মানুষ এই প্রথম কোনো পেশাদার সংবাদ বুলেটিনে একজন ট্রান্সজেন্ডার নারীকে খবর পাঠ করতে দেখবেন, যা স্বাধীনতার ৫০ বছরে দেশে আগে কখনো ঘটেনি।