দেশের তিন জেলায় করোনায় আরও ৪৪ মৃত্যু

28

দেশের তিন জেলা খুলনা, রাজশাহী ও ময়মনসিংহের করোনা হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ৪৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। বিস্তারিত প্রতিনিধির পাঠানো খবরে-

খুলনা : খুলনার দুই হাসপাতালে করোনা ও উপসর্গে আরও ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে শনিবার (১৭ জুলাই) সকাল ৮টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়।

খুলনা ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতালের ফোকালপার্সন ডা. সুহাস রঞ্জন হালদার জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে করোনায় ৬ জন ও উপসর্গ নিয়ে একজনসহ ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ২০০ জন। এরমধ্যে রেড জোনে ১৩৬ জন, ইয়ালো জোনে ২৪ জন ও আইসিইউতে ২০ জন। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ২৮ জন ও সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২৯ জন।

গাজী মেডিক‌্যাল কলেজ হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ডা. গাজী মিজানুর রহমান জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃতরা হলেন— খুলনা মহানগরীর শেখপাড়ার মাহামুদা খানম (৫৯), দিঘলিয়া উপজেলার দেয়াড়ার সাহিদা বেগম (৫৫), নড়াইলের লোহাগড়ার জোগিয়া গ্রামের শেখ আবুল হোসেন (৮৫) ও যশোর সদরের জাকির হোসেন (৫৭)। বর্তমানে এই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন আরো ১০৩ জন। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ১৯ জন ও সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২০ জন।

খুলনা জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডা. কাজী আবু রাশেদ জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালের ৮০ শয্যার করোনা ইউনিটে কোনো রোগীর মৃত্যু হয়নি। বর্তমানে এই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৫৬ জন। এরমধ্যে ২৪ জন পুরুষ ও ৩২ জন নারী। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ৯ জন ও সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৩ জন।

এদিকে, গতকাল খুমেক ল্যাবে ৬৩২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। নমুনা পরীক্ষায় ২০০ জনের করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়। এরমধ্যে খুলনার ১৪৯ জন, বাগেরহাটের ৩০ জন, যশোরের ১৪ জন, নড়াইলের ২ জন, সাতক্ষীরা, ঢাকা ও বরিশালের একজনের করে করোনা শনাক্ত হয়।

রাজশাহী :  রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল করোনা ইউনিটের বিভিন্ন ওয়ার্ডে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার (১৭ জুলাই) সকালে রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, রামেক হাসপাতালের করোনা ইউনিটের সংক্রমণে আটজন ও উপসর্গে আটজন মারা গেছেন। লিঙ্গভেদে ১৪ জন পুরুষ ও দুইজন নারী মারা গেছেন। মৃতদের অধিকাংশের বয়স ৩৫-৬৫ বছরের মধ্যে।

তিনি আরও বলেন, মৃতের মধ্যে রাজশাহীর নয়জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের দুইজন, নাটোরের একজন, পাবনার তিনজন ও কুষ্টিয়ার একজন ছিলেন।

রামেক পরিচালক বলেন, করোনা মৃত আটজনের মধ্যে রাজশাহীর চারজন, নাটোরের একজন ও পাবনার তিনজন করোনা সংক্রমণে মারা গেছেন। অন্যদিকে রাজশাহীর পাঁচজন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের দুইজন ও কুষ্টিয়ার একজন করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। মৃতদের পরিবারকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দাফন করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় রামেকে নতুন ভর্তি হয়েছেন ৬৬ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২৭ জন। রামেকে করোনা আক্রান্ত হয়ে ২৫৮ জন ও উপসর্গ নিয়ে ২৬৯ জন ভর্তি রয়েছেন।

হাসপাতালের পরিচালক বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় রামেক হাসপাতালের পিসিআর মেশিনে ১৮৮টি নমুনা পরীক্ষায় ৮৪ জনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। অন্যদিকে মেডিকেল কলেজের পিসিআর মেশিনে ২৮২ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৬৬ জনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। দুই ল্যাবের টেস্টে মোট ৪৭০ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে ১৫০ জনের করোনা পজিটিভ রেজাল্ট আসে।

ময়মনসিংহ : ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে করোনায় আটজন এবং উপসর্গে নয়জন মারা গেছেন।

শনিবার (১৭ জুলাই) সকালে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটের ফোকাল পারসন ডা. মহিউদ্দিন খান মুন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

করোনায় মৃতরা হলেন- ময়মনসিংহ সদর উপজেলার অপর্না গোমেজ (৪২), নার্গিস আক্তার (৬০), নাসিরুদ্দিন (৬৫), তারা বালা সাহা (৮০), তারাকান্দার শাহিদা বেগম (৩৮), শেরপুর সদর উপজেলার গেন্দাফুল (৩৫), জামালপুর বকসিগঞ্জের রোকেয়া (৬০) কিশোরগঞ্জ ভৈরবের আকলিমা (৪৯)।

উপসর্গে মৃতরা হলেন- ময়মনসিংহ সদরের জেসমিন রহমান (৬৩), আবদুর রশিদ (৬৫), মুক্তাগাছার মরিয়ম বেগম (৭০), সোহরাব উদ্দিন (৬৫), ফুলবাড়িয়ার পারভিন আক্তার (৩৫), আছিয়া বেগম (৪০), তারাকান্দার সুরুজ আলী (৪৮), সুনামগঞ্জের দিজেন্দ্র (৬৫) গাজিপুর শ্রীপুরের শিল্পী বেগম (৪০)।

ফোকাল পারসন ডা. মহিউদ্দিন খান বলেন, আইসিইউতে ২২ জনসহ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে মোট ৪৩৯ জন রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এদিকে, ময়মনসিংহ জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম বলেন, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ও এন্টিজেন টেস্টে মোট ৪৩৬টি নমুনা পরীক্ষা করে নতুন করে ১০৮ জন করোনা শনাক্ত হয়েছেন।