পাকিস্তানে আফগান দূতের মেয়েকে অপহরণ

38

পাকিস্তানে নিযুক্ত আফগান রাষ্ট্রদূতের মেয়েকে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা অপহরণ ও নির্যাতন করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। পরে অবশ্য তাকে ছেড়ে দেওয়া হয় এবং উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এই ঘটনাকে ‘অমানবিক আক্রমণ’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন আফগান রাষ্ট্রদূত নাজিব আলিখিল।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদে নিযুক্ত আফগান রাষ্ট্রদূত নাজিব আলিখিলের মেয়ের নাম সিলসিলা আলিখিল। শুক্রবার (১৭ জুলাই) ইসলামাবাদে বাড়ি ফেরার সময় তাকে অপহরণ করা হয়। অপহরণের পর কয়েক ঘণ্টা তাকে আটকে রাখে দুর্বৃত্তরা। এসময় তাকে নির্যাতন করা হয় বলেও জানানো হয়েছে।

আফগানিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, অপহরণের পর সিলসিলা আলিখিলকে ‘ব্যাপক নির্যাতন’ করা হয় এবং এ বিষয়ে অভিযোগ দায়ের করা হচ্ছে।

বিবিসি বলছে, আফগানিস্তান ও পাকিস্তান প্রতিবেশি রাষ্ট্র হলেও দীর্ঘদিন ধরেই উভয় দেশের সম্পর্ক কার্যত আন্তরিকতাশূন্য।

পাকিস্তানি কর্মকর্তারা বলছেন, শুক্রবার ইসলামাবাদে ভ্রমণের সময় সিলসিলা আলিখিলের গাড়িতে জোরপূর্বক উঠে পড়ে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা। এসময় সিলসিলাকে গাড়ির মধ্যেই পেটানো হয়। পরে অপহরণকারীদের কাছ থেকে ছাড়া পেয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নেন তিনি।

এদিকে মেয়ের ওপর এই হামলাকে ‘অমানবিক’ বলে নিন্দা জানিয়েছেন পাকিস্তানে নিযুক্ত আফগানিস্তানের রাষ্ট্রদূত নাজিব আলিখিল। তবে তিনি জানিয়েছেন, তার মেয়ে এখন ভালো বোধ করছেন।

অন্যদিকে এই ঘটনায় ‘গভীর উদ্বেগ’ প্রকাশ করেছে আফগানিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। একই সঙ্গে দেশটিতে নিযুক্ত কূটনীতিক ও তাদের পরিবারের যথাযথ নিরাপত্তা নিশ্চিতেরও আহ্বান জানায় তারা।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, আফগান রাষ্ট্রদূতের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। অন্যদিকে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ রশিদ আহমেদ জানিয়েছেন, অভিযুক্ত অপরাধীদের দ্রুত গ্রেফতারের নির্দেশ দিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।