পুঁজিবাজারে আসছেন নতুন নতুন বিনিয়োগকারীরা

40

দীর্ঘ মন্দা কাটিয়ে শেয়ারবাজার কিছুটা ইতিবাচক ধারায় ফেরায় প্রতিনিয়ত পুঁজিবাজারে নতুন নতুন বিনিয়োগকারীরা আসছেন। বাজারে নারী-পুরুষ ও দেশি-বিদেশি সব ধরনের বিনিয়োগকারীদের অংশগ্রহণ বেড়েছে। গত এক মাসে বাজারে নতুন বিনিয়োগকারী এসেছে এক লাখের ওপরে।

সেন্ট্রাল ডিপোজিটরি অব বাংলাদেশ লিমিটেডের (সিডিবিএল) তথ্য অনুযায়ী, ৫ নভেম্বর পর্যন্ত বেনিফিশিয়ারি ওনার্স (বিও) হিসাব দাঁড়িয়েছে ২৩ লাখ ৮৫ হাজার ৬৫টি, যা ৩০ সেপ্টেম্বর ছিল ২২ লাখ ৮৪ হাজার ৮০২টিতে। অর্থাৎ গত এক মাসে বিও হিসাব বেড়েছে ১ লাখ ২৬৩টি।

সিডিবিএল’র তথ্য মতে, গত এক মাসে পুরুষ ও নারী উভয় ধরনের বিনিয়োগকারীর সংখ্যা বেড়েছে। সেই সঙ্গে বেড়েছে প্রবাসী ও বিদেশি বিনিয়োগকারীর সংখ্যা। কোম্পানি বিনিয়োগকারীর সংখ্যাও বেড়েছে।

বর্তমানে পুরুষ বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাব আছে ১৭ লাখ ৫৫ হাজার ২১৫টি। সেপ্টেম্বর শেষে এই সংখ্যা ছিল ১৬ লাখ ৭৮ হাজার ৬১৩টি। অর্থাৎ মাসের ব্যবধানে পুরুষ বিনিয়োগকারীদের হিসাব বেড়েছে ৭৬ হাজার ৬০২টি।

অপরদিকে বর্তমানে নারী বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাব দাঁড়িয়েছে ৬ লাখ ১৬ হাজার ৩২৫টি। সেপ্টেম্বর শেষে এই সংখ্যা ছিল ৫ লাখ ৯২ হাজার ৮০৬টি। এ হিসাবে নারী বিনিয়োগকারীদের বেড়েছে ২৩ হাজার ৫১৯টি।

এদিকে কোম্পানি বিও হিসাব রয়েছে ১৩ হাজার ৫৩৫টি। সেপ্টেম্বর শেষে এই সংখ্যা ছিল ১৩ হাজার ৩৮৩টিতে। সে হিসাবে কোম্পানি বিও হিসাব বেড়েছে ১৫২টি।

ব্যক্তি বিনিয়োগকারীদের তথ্য পর্যালোচনায় দেখা যায়, বর্তমানে দেশি বিনিয়োগকারীদের নামে বিও হিসাব আছে ২২ লাখ ৩৯ হাজার ৪০৩টি। যা সেপ্টেম্বর শেষে ছিল ২১ লাখ ৪৮ হাজার ৩৪৫টি। অর্থাৎ দেশি বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাব বেড়েছে ৯১ হাজার ৫৮টি।

অপরদিকে বর্তমানে প্রবাসী ও বিদেশি বিনিয়োগকারীদের নামে বিও হিসাব রয়েছে ১ লাখ ৩২ হাজার ১৩৭টি। সেপ্টেম্বর শেষে এই সংখ্যা ছিল ১ লাখ ২৩ হাজার ৭৪টিতে। অর্থাৎ প্রবাসী ও বিদেশি বিও হিসাব বেড়েছে ৯ হাজার ৬৩টি।

পুঁজিবাজারে নতুন বিনিয়োগকারী বাড়ার বিষয়ে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) শাকিল রিজভী জাগো নিউজকে বলেন, করোনার কারণে বিনিয়োগকারী কমার কথা, সেখানে নতুন বিনিয়োগকারী বেড়েছে। এটা পুঁজিবাজারের জন্য খুব ভালো খবর।

তিনি বলেন, বিএসইসির নতুন কমিশন বেশকিছু ইতিবাচক পদক্ষেপ নিয়েছে। তার ফলে বাজারের ওপর বিনিয়োগকারীদের আস্থা বেড়েছে। আর আস্থা বাড়ার কারণে বিনিয়োগকারীরা পুঁজিবাজারমুখি হয়েছেন। এছাড়া বেশকিছু নতুন আইপিও এসেছে। এটা বিও হিসাব বাড়ার একটি অন্যতম কারণ।

নতুন বিনিয়োগকারী আসায় বাজারে কি ধরনের প্রভাব পড়বে জানতে চাইলে তিনি বলেন, নতুন বিনিয়োগকারী যত বাড়বে বাজারে গভীরতা তত বাড়বে। সেই সঙ্গে বাজারকাঠামো শক্তিশালী হবে। কারণ শুধু ব্যাংকের টাকার ওপর ভর করে শক্তিশালী পুঁজিবাজার গড়ে তোলা সম্ভব না।