বল হাতে নিয়েই বিধ্বংসী রূপে সাকিব আল হাসান

44

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সাকিব আল হাসানের সর্বশেষ উইকেট ২০১৯ সালের ২১ সেপ্টেম্বর। সেদিন আফগানিস্তানের বিপক্ষে চট্টগ্রামে শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি খেলেছিল বাংলাদেশ। ওই ম্যাচে অধিনায়ক সাকিব আল হাসা এলবিডব্লিউতে ফিরিয়েছিলেন আফগান অলরাউন্ডার মোহাম্মদ নবীকে।

সেই শেষ। এরপর নানা ঘটন-অঘটনে কেটে গেছে ১৬টি মাস। সাকিব আল হাসান অবশেষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরে এলেন এবং শুধু ফিরে আসাই নয়, নিজের স্বমুর্তিতে ফিরে এলেন বলা যায়। কারণ, ১৬ মাস পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরে বল হাতেই নিজের বিধ্বংসী চেহারা উন্মোচন করে দিয়েছেন তিনি ক্যারিবীয়দের সামনে।

২০১৯ সালের ২১ সেপ্টেম্বর শেষ টি-টোয়েন্টি খেলার পর বিসিবির বিরুদ্ধে ক্রিকেটারদের নিয়ে বিদ্রোহ, স্পন্সর সম্পর্কিত বিরোধ এবং শেষ পর্যন্ত ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব গোপন করার অভিযোগে আইসিসি কর্তৃক ১ বছর নিষেধাজ্ঞা। গত বছর ২৯ অক্টোবর নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হলেও সাকিব আল হাসানের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে মাঠে নামা হয়নি।

করোনার কারণে এমনিকেই গত মার্চ মাস থেকে পুরো বাংলাদেশ দলই মাঠে নামতে পারেনি। মাঝে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের সম্ভাবনা থাকলেও সেই করোনার কারণে সিরিজ স্থগিত হয়ে যায়। বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপ কিংবা বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ দিয়ে বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা মাঠে ফিরেছিলেন সত্য; কিন্তু আন্তর্জাতিক ম্যাচ তো খেলা হয়নি।

বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ দিয়ে মাঠে ফিরেছিলেন সাকিব আল হাসানও। জেমকন খুলনার হয়ে খেললেও ব্যাট কিংবা বল হাতে তেমন কিছু করে দেখাতে পারেননি। যদিও তার দল চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল।

কিন্তু বরাবরের মত আন্তর্জাতিক মঞ্চেই যেন সাকিবের নিজস্ব জায়গা। এই মঞ্চে ফিরলেই নিজেকে মেলে ধরার বাড়তি অনুপ্রেরণা পেয়ে যান তিনি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে আজকের ম্যাচ দিয়ে করোনা পরবর্তী সময়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরেছে বাংলাদেশ। ফিরেছেন সাকিব আল হাসানও।

টস হেরে ব্যাট করতে নোম ওয়েস্ট ইন্ডিজকে শুরুতেই চেপে ধরেছিলেন মোস্তাফিজুর রহমান, ২৪ রানের মধ্যে দুই ওপেনারকে ফিরিয়ে দিয়ে। রুবেল-মোস্তাফিজ এবং অভিষিক্ত হাসান মাহমুদের পর অধিনায়ক তামিম ইকবাল বল তুলে দিলেন সাকিবের হাতে। নেতৃত্ব এবং বন্ধুত্বের আস্থার প্রতিদান পুরোপুরি দিলেন সাকিব।

শুরুতেই আন্দ্রে ম্যাকার্থিকে সরাসরি বোল্ড করে দিলেন সাকিব। প্রথম ওভারে দিয়েছিলেন কেবল দুই রান। পরের ওভারে এসে চতুর্থ বলে ফুল লেন্থের বলটি অফ স্ট্যাম্পের হালকা বাইরে রাখেন সাকিব। সুইপ খেলতে চেয়েছিলেন ম্যাকার্থি। কিন্তু ব্যাট বল মিস করে গেলো। হালকা টার্ন নিয়ে স্ট্যাম্পই ভেঙে দেয় ম্যাকার্থির। ১২ রান করে আউট হন এই ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যান।

একই সঙ্গে ওয়ানডে ক্রিকেটে ঘরের মাঠে ১৫০তম উইকেটের মালিক হয়ে গেলেন সাকিব আল হাসান। তবে ওয়ানডেতে সাকিবের মোট উইকেট সংখ্যা কিন্তু ২৬৩টি। সর্বোচ্চ ২৬৯টি উইকেট রয়েছেন মাশরাফি বিন মর্তুজার।

নিজের চতুর্থ ওভারে এসে পেলেন দ্বিতীয় উইকেটের দেখা। এবার ক্যারিবীয় অধিনায়ক জেসন মোহাম্মদের উইকেট নিলেন সাকিব। সাকিবের অফসাইডে রাখা বলটি এগিয়ে এসে খেলতে গেলেন জেসন। কিন্তু মিস করেন। উইকেটরক্ষক মুশফিক বলটি ধরেই স্ট্যাম্প ভেঙে দিলেন। টিভি আম্পায়ারের কাছ থেকে রিপ্লে দেখে আউট ঘোষণা করেন আম্পায়ার।

নিজের পঞ্চম ওভারে নিলেন তৃতীয় উইকেট। এবার শিকার হলেন এনক্রুমাহ বোনার। সাকিবের ঘূর্ণি বলটি ব্যাট-প্যাড এগিয়ে দিয়েও রক্ষা করতে পারেননি। আউটের আবেদনে আম্পায়ার আঙ্গুল তুললে ডিআরএস কল করেন বোনার। কিন্তু তাতে লাভ হয়নি। আউট হলেন তিনি।

এ রিপোর্ট লেখার সময় ওয়েস্ট ইন্ডিজের রান ২২.৫ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ৭৬ রান। ১৪ রান নিয়ে কাইল মায়ারস এবং ১৩ রান নিয়ে ব্যাট করছেন রোভম্যান পাওয়েল।