বানারীপাড়ায় এমপি শাহে আলমের বিরুদ্ধে অ-প্রচারের প্রতিবাদে বিক্ষোভ করেছে সর্বস্তরের মানুষ

24

মো. সুজন মোল্লা

বরিশালের বানারীপাড়ায় মো. শাহে আলম এমপির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র ও অপপ্রচারে প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে সর্বস্তরের মানুষ।

২৯ জানুয়ারী (শনিবার) বিকাল ৪টায় পৌর শহরের আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে থেকে সনাতনী ধর্মাবলম্বী কয়েকটি সংগঠনের ব্যানারে, উপজেলা ও পৌর আওয়ামীলীগ সহ অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মী-সমর্থক ধর্মবর্ণ নির্বিশেষে নানা শ্রেণী-পেশার কয়েকহাজার নারী-পুরুষের অংশগ্রহনে বিক্ষোভ মিছিলটি শুরু হয়ে ডাকবাংলো মোড়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরালের সামনে গিয়ে শেষ হয়।

এ সময় আগত নেতাকর্মী ও সমর্থকরা বলেন, বরিশাল-২ আসনে উন্নয়ন ও দলীয় চিত্র পাল্টে যাওয়ায় এমপি শাহে আলমের বিরুদ্ধে চক্রান্ত-ষড়যন্ত্র ও অপপ্রচারে লিপ্ত হয়েছে এই আসনে উড়ে এসে জুড়ে বসে সংসদ সদস্য হবেন এমন কতিপয় কিছু নেতাদের সমর্থকরা। তবে সেটা মানতে নারাজ এখানকার আওয়ামী লীগের প্রান্তিক তৃণমূলের নেতাকর্মী ও সমর্থকরা। কেননা মো. শাহে আলমের কাছ থেকে দলীয়ভাবে তৃণমূল যেভাবে সহযোগীতা ও মূল্যায়ন পেয়েছেন, সেটা অতিতে এই আসন থেকে কখনও পাননি তারা। রেশিও অনুসারে নয় উন্নয়নের দরকার তাই কাজ করতে হবে, এমন মনোভাব নিয়ে বরিশাল-২ আসনকে সাজানোর যে মহাযজ্ঞ চালাচ্ছেন স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মো. শাহে আলম এমপি।

বিশেষ করে দু’উপজেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে দৃষ্টিন্দন অবকাঠামো নির্মানে তিনি সাড়া জাগিয়েছেন। যা সকল উন্নয়ন কর্মকান্ডকে পিছনে ফেলেছে। মা মাটির সন্তান বলেই এটা তার কাছ থেকে সম্ভব হচ্ছে বলেও তারা দাবী করেন। তারা আরও বলেন, এখানকার আপমর জনতার মাঝ দিয়ে যখন পুনরায় বর্তমান এমপি শাহে আলমকে মনোনয়ন দেয়ার দাবী জোড়ালো হচ্ছিলো, ঠিক তখনই বানারীপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের মধ্যে ঘাপটি মেরে থাকা একটি কুচক্রি মহল সহজ-সরল সংখ্যালঘু পরিবারকে ভুল বুঝিয়ে তাদের রাজনৈতিক (মনোনয়ন) হীনচরিত্র চরিচাত্র করতে একটি সংবাদ সম্মেলনের মধ্য দিয়ে একটি কাল্পনিক কাহিনীর জন্মদিলো। সেই কাহিনীর বিরুদ্ধেই আজকের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ।

বরিশাল জেলা আওয়ামীলীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক ও বানারীপাড়া পৌর মেয়র অ্যাডভোকেট সুভাষ চন্দ্র শীলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গোলাম ফারুক,উপজেলা ওয়াকার্সপার্টির সভাপতি অধ্যাপক মন্টু লাল কুন্ডু,উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আক্তার হোসেন মোল্লা,পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি সুব্রত লাল কুন্ডু,উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও ইউপি চেয়ারম্যান মাষ্টার সিদ্দিকুর রহমান,উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও যুবলীগের সাবেক আহবায়ক অধ্যাপক জাকির হোসেন,উপজেলা যুবলীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক ও ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জাকির হোসেন সরদার,প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সুজন মোল্লা,পৌর পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সুমম রায় সুমন,উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সুমন মোল্লা প্রমুখ।

এসময় বক্তারা বানারীপাড়া ও উজিরপুরের উন্নয়নের রূপকার জননন্দিত সংসদ সদস্য মো. শাহে আলমের অভূতপূর্ব উন্নয়ন কর্মকান্ডে ঈর্ষান্বিত হয়ে ষড়যন্ত্র ও অপপ্রচারে লিপ্ত দলের ভিতরে ঘাপটি মেরে থাকা মোশতাকদের বিরুদ্ধে দলীয় নেতা-কর্মী-সমর্থকসহ জনসাধারণকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহবান জানান। এসময় তারা আরও বলেন, নিরীহ ও সহজ-সরল সংখ্যালঘু সম্প্রদায়কে কু-প্ররোচনা দিয়ে সংসদ সদস্যের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে যে অপ-প্রচার চালানো হয়েছে তা ওই ষড়যন্ত্রেরই অংশ এবং মিথ্যা ও বানোয়াট।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য কৃষিবিদ ডা. খোরশেদ আলম সেলিম,উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নুরুল হুদা,উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ও সদর ইউপি চেয়ারম্যান আ. জলিল ঘরামী,যুগ্ম সম্পাদক এটিএম মোস্তফা সরদার,সাংগঠনিক সম্পাদক ও ইলুহার ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম,সহ-প্রচার সম্পাদক ও বিশারকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম শান্ত,সৈয়দকাঠী ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মৃধা,বাইশারী ইউপি চেয়ারম্যান শ্যামল চক্রবর্তী,সৈয়দকাঠীর সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আ.মন্নান মৃধা,উপজেলা আওয়ামী লীগের ক্রিড়া সম্পাদক জাহিদ হোসেন জুয়েল, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ শহিদুল ইসলাম,আওয়ামী লীগ নেতা শামসুল আলম মল্লিক,উপজেলা কৃষকলীগের সাবেক সভাপতি আ. মালেক হাওলাদার,পৌরসভার প্যানেল মেয়র মনিরা আক্তার ময়না,উপজেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর কাউন্সিলর গৌতম সমদ্দার,উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খিষ্ট্রান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক দেবকুমার সরকার,উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি হাফিজুর রহমান মামুন,সাধারণ সম্পাদক সুলতান সিকদার, উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সম্পাদক শাহিদুর রহমান সোহাগ,কেন্দ্রীয় হরিসভা মন্দিরের সভাপতি বিবেকানন্দ কুন্ডু,সাধারণ সম্পাদক বাবুল দাস,কেন্দ্রীয় লোকনাথ মন্দিরের সভাপতি আশীষ কুন্ডু ছনু,সাধারণ সম্পাদক সজল সাহা,পৌর পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সুমম রায় সুমন,বরিশাল জেলা ছাত্র ঐক্য পরিষদের সহ-সভাপতি সুমন দেবনাথ,বানারীপাড়া উপজেলা যুব ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রিপন বনিক, ছাত্রবন্ধন ফোরামের সভাপতি ডলার বিন হানিফ,পৌর পুজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক প্রসেনজিৎ বড়াল, উপজেলা ছাত্র ঐক্য পরিষদের সভাপতি হৃদয় সাহা,হিন্দু বৌদ্ধ খিষ্ট্রান যুব ঐক্য পরিষদ ও সনাতনী যুব ঐক্য পরিষদের সহসভাপতি পূর্ণিমা ঘোষ দস্তিদার নর সুন্দর কল্যান সমিতির সভাপতি দিলীপ কুমার শীল,সাধারণ সম্পাদক বাসুদেব শীল প্রমুখ।