বানারীপাড়ায় গৃহবধুকে পিটিয়ে জখম করার অভিযোগ

5

বানারীপাড়া প্রতিনিধি
বরিশালের বানারীপাড়ায় নুরুন্নাহার ওরফে নুপুর নামের এক গৃহবধুকে পিটিয়ে জখম করায়, স্বামী মো. আল আমিন বালী বাদী হয়ে ৬ জনকে বিবাদী করে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।

অভিযোগে সৈয়দকাঠি ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের সাতবাড়িয়া গ্রামের আবুল বালীর ছেলে শামিম বালী (৩৪), তাছেন বালীর ছেলে শামসু বালী (৪৪), মৃত হাতেম বালীর ছেলে আবুল বালী (৬০) ও বজলু বালী, আলী আহম্মদ ডাকুয়ার ছেলে জাকির ডাকুয়া (৪৪) এবং হাসেম বালীর ছেলে জহিরুল বালীকে বিবাদী করা হয়।

অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে, শুক্রবার (১৪ জানুয়ারী) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বাদীর বাড়ির সামনের আঙ্গিনায় আসিয়া তাকে উদ্দেশ্য করে কুরুচিপূর্ণ ভাষায় কথা বলতে থাকে। এ সময় উল্লেখিত জন’দের হাতে লাঠি সোটা ছিলো। আল আমিন বালী ঘরে একা থাকায় তাদেরকে খারাপ কথা বলতে নিষেধ করিলে শামিম বালী ও বজলু বালী বারান্দায় প্রবেশ করিয়া তাকে এলোপাতারিভাবে কিল ঘুষি মারতে থাকে।
এ সময় আল আমিনের স্ত্রী নুরুন্নাহার নুপুর স্বামীকে রক্ষা করিতে এগিয়ে আসলে অবৈধ জনতাবদ্ধে প্রবেশকারিসহ আরও ৩/৪ জনের একটি দল তাকে খুনের উদ্দেশ্যে পিটাতাে থাকে। এতে নুপুরের শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখমের সৃষ্টি হয়। মারধরের সময় শামিম বালী নুপুরের গলায় থাকা ১ ভরি ওজনের স্বর্ণের চেইন ছিনাইয়া নিয়ে যায়।

পরে তাদের ডাকচিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে দেখে নেয়ার হুমকি দিয়ে আক্রমনকারীরা চলে যায়। এগিয়ে আসা লোকজন আহতবস্থায় নুপুরকে উদ্ধার করে বানারীপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করে। নুপুরকে হাসপাতালে নেয়ার পথেও পৌর শহরের মধুচাক এলাকায় শামিম বালী ও জাকির ডাকুয়া বাধার সৃষ্টি করে।

এ বিষয়ে অভিযুক্তরা তাদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বিকার করে জানান, ওইদিন শামিমের পিতা আবুল বালীর মাথায় ইটের আঘাত করে বাদী পক্ষরা। এতে তার মাথা ফেটে যায়। সেই অভিযোগ থেকে রেহাই পেতেই নুরুন্নাহার নাটক সাজানো হয়েছে।