বিশ্বের একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে এমন রেকর্ড গড়লেন সাকিব

90

আইসিসির নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে মাঠে ফেরার পর বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে খুব একটা ছন্দে ছিলেন না সাকিব আল হাসান। বল হাতে স্বাভাবিক ফর্মে থাকলেও, একদমই কথা বলছিল না তার ব্যাট। তবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতেই দেখা মিলল সেই চিরচেনা সাকিবের। যিনি একাধারে ব্যাট-বল উভয় দিকেই ‘চ্যাম্পিয়ন’ ক্রিকেটার। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের তিন ম্যাচেই দেখালেন নিজের সহজাত পারফরম্যান্স।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে ক্যারিয়ারের ৪৮তম ফিফটি করেছেন সাকিব। চার নম্বরে নেমে ৮০ বলে খেলেছেন ৫১ রানের ইনিংস। এর মাধ্যমে পৌঁছে গেছেন অলরাউন্ডারদের এক ডাবলে। কোনো এক নির্দিষ্ট দেশে ৬ হাজার রান এবং ৩০০ উইকেট নেয়া একমাত্র ক্রিকেটার হয়ে গেছেন সাকিব। যে রেকর্ড নেই ইতিহাসের আর কোনো ক্রিকেটারের।

আজকের ৫১ রানের ইনিংসের পর বাংলাদেশের মাটিতে তিন ফরম্যাট মিলে সাকিবের মোট রান ৬০৪৫। বোলিংয়ে নামার আগে দেশের মাটিতে তার মোট শিকার ৩৩৬ উইকেট। বিশ্ব ক্রিকেটে নির্দিষ্ট এক দেশে ৬ হাজার রান ও ৩০০ উইকেট দূরে, ৫ হাজার রান ও ৩০০ উইকেটের রেকর্ডও নেই আর কোনো ক্রিকেটারের। অর্থাৎ একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে ৫ হাজার রান ও ৩০০ উইকেটের রেকর্ডটাও গড়েছিলেন সাকিব। যা আজ আরও বাড়িয়ে নিলেন।

এ রেকর্ডে সাকিবের সবচেয়ে কাছাকাছি আছেন সাবেক ভারতীয় অলরাউন্ডার কপিল দেব। ভারতের ১৯৮৩ বিশ্বকাপজয়ী এ অধিনায়কের নিজ দেশের মাটিতে ৪১৫৮ রান এবং বল হাতে রয়েছে ৩১৯ উইকেট। এছাড়া দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক অধিনায়ক শন পোলক নিজের দেশে ব্যাট হাতে ৩৫৫৬ রানের পাশাপাশি বল হাতে নিয়েছেন ৪৪৫টি উইকেট।

অলরাউন্ড রেকর্ড অর্থাৎ ৬ হাজার রান ও ৩০০ উইকেট নেয়ার ক্ষেত্রে সাকিব প্রথম হলেও, বাংলাদেশের মাটিতে তিন ফরম্যাট মিলে ৬ হাজার রান করা প্রথম ব্যাটসম্যান নন সাকিব। তার আগেই দেশের মাঠে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ৬ হাজার রানের মাইলফলক পূরণ করেছেন মুশফিকুর রহীম ও তামিম ইকবাল।