বিশ্বে করোনায় আরও ৫৬৬৯ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৪৮১২২৩

4

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বব্যাপী গত ২৪ ঘণ্টায় পাঁচ হাজার ৬৬৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে নতুন করে করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন চার লাখ ৮১ হাজার ২২৩ জন। এছাড়া নতুন করে সুস্থ হয়েছেন তিন লাখ ৯০ হাজার ৫৬৪ জন।

রোববার (২১ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ৮টায় আন্তর্জাতিক পরিসংখ্যানবিষয়ক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

সর্বশেষ পরিসংখ্যান অনুযায়ী, বিশ্বে এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫১ লাখ ৬৩ হাজার ৩৬৯ জনে। মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ২৫ কোটি ৭৪ লাখ ২৪ হাজার ৬৩৯ জন। সুস্থ হয়েছেন ২৩ কোটি ২৩ লাখ ৬৮ হাজার ৪১৮ জন।

করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি মৃত্যু ও আক্রান্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে মোট আক্রান্ত হয়েছেন চার কোটি ৮৫ লাখ ৫৮ হাজার ২২৯ জন। তাদের মধ্যে মারা গেছেন সাত লাখ ৯৩ হাজার ৫৩৯ জন। এছাড়া সুস্থ হয়ে উঠেছেন তিন কোটি ৮৪ লাখ ৩৭ হাজার ৮৫২ জন।

ভারতে এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন তিন কোটি ৪৫ লাখ চার হাজার ৬৮৯ জন। এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে চার লাখ ৬৫ হাজার ৩৪৯ জনের। আর করোনা থেকে সেরে উঠেছেন তিন কোটি ৩৯ লাখ নয় হাজার ৭০৮ জন।

করোনায় যুক্তরাষ্ট্রের পর সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে ল্যাটিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে। দেশটিতে এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ছয় লাখ ১২ হাজার ৬২৫ জনের। মোট আক্রান্ত হয়েছেন দুই কোটি ২০ লাখ ১২ হাজার ১৫০ জন। দেশটিতে করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন দুই কোটি ১২ লাখ ১৭ হাজার ৭৩৯ জন।

তালিকায় এরপর রয়েছে যুক্তরাজ্য, রাশিয়া, তুরস্ক, ফ্রান্স, ইরান, জার্মানি, আর্জেন্টিনা, স্পেন, কলম্বিয়া ও ইতালি।

তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান এখন ৩১ নম্বরে। দেশে এখন পর্যন্ত করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন ১৫ লাখ ৭৩ হাজার ৮৮৯ জন। তাদের মধ্যে মারা গেছেন ২৭ হাজার ৯৪৬ জন। তবে গত ২৪ ঘণ্টায় বাংলাদেশে করোনায় কারো মৃত্যু হয়নি। দেশে এ পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর সেরে উঠেছেন ১৫ লাখ ৩৮ হাজার ছয় জন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহান প্রদেশের হুবেই শহরে প্রথম করোনার অস্তিত্ব শনাক্ত হয়। কয়েক মাসের মধ্যেই ভাইরাসটি বিশ্বের অধিকাংশ দেশে ছড়িয়ে পড়ে। গত বছরের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করোনাকে ‘বৈশ্বিক মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করে।