মেয়র হিসেবে উত্তরাধিকার সূত্রে অনেক জঞ্জাল পেয়েছি

30

সিটি কর্পোরেশনের মেয়র হিসেবে উত্তরাধিকার সূত্রে অনেক জঞ্জাল পেয়েছি বলে উল্লেখ করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

বুধবার (৪ নভেম্বর) দুপুরে রাজধানীর কাপ্তান বাজারের নির্মিতব্য আধুনিক কসাইখানা কাজের পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এ কথা বলেন।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ সময় মেয়র বলেন, উত্তরাধিকারসূত্রে আমি অনেক জঞ্জাল পেয়েছি। অনেক সমস্যায় জর্জরিত ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের বিভিন্ন এলাকা। কোনোটাতেই আমরা ছাড় দিচ্ছি না, পর্যায়ক্রমে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। সিটি কর্পোরেশনের অধীনে যতগুলো মার্কেট আছে পর্যায়ক্রমে এইসব মার্কেটের সব অবৈধ স্থাপনাও উচ্ছেদ করা হবে।

কসাইখানা কাজের পরিদর্শন শেষে ফজলে নূর তাপস বলেন, কাপ্তান বাজার আধুনিক কসাইখানা নির্মাণকাজে ধীরগতি আপনারা লক্ষ্য করেছেন। ডিসেম্বর পর্যন্ত এই কাজের মেয়াদ রয়েছে। ডিসেম্বরের মধ্যেই দ্রুতগতিতে কাজ শেষ করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। কাজের অগ্রগতিতে ঠিকাদারদের গাফিলতি রয়েছে।

মশক নিধন কর্মী কমানো হচ্ছে কিনা, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, এমন একটি সংবাদ আমি লক্ষ্য করেছি। আপনারা দেখেছেন মশক নিধন কর্মসূচি আমরা বছরব্যাপী গ্রহণ করেছি। ৬ মাস পর পর আমরা মশক নিধন কর্মসূচি পর্যালোচনা করি। ডেঙ্গু রোধে প্রথম অবস্থায় আমরা বেশি জনবল নিয়োগ দিয়েছিলাম। ডেঙ্গু রোধে আমাদের কার্যক্রম সফলতার দাবিদার। বর্তমানে এই কার্যক্রমে বেশি সংখ্যক জনবল প্রয়োজন না হওয়ায় তাদেরকে অন্য কাজে লাগানো হবে। তবে আমরা কাউকে ছাঁটাই করছি না।

এসময় ঢাকার বুড়িগঙ্গা নদীর দূষণ প্রসঙ্গে শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, প্রধানমন্ত্রী কিছুদিন আগে একটি অভিপ্রায় ব্যক্ত করেছিলেন আদি বুড়িগঙ্গা চ্যানেল উদ্ধার করা যায় কিনা! আমরা সেই লক্ষ্যে কাজ করছি। আমরা চায় আদি বুড়িগঙ্গা নদী সম্পূর্ণরূপে উদ্ধার করে সেখানে একটি নান্দনিক পরিবেশ এবং পার্ক স্থাপন করতে। এতে ঢাকাবাসী একটি সুন্দর নান্দনিক পরিবেশ ফিরে পাবে।