শিশু সন্তানকে হত্যার পর মায়ের আত্মহত্যাচেষ্টা

6

সিরাজগঞ্জ সদরে পুরুষাঙ্গ কেটে ৫ বছর বয়সী এক শিশু সন্তানকে তার মা হত্যা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনার পর শিশুটির মা নিজের পেটে ছুরিকাঘাতে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন।

সদর থানার এসআই আব্দুল আলিম জানান, শুক্রবার রাতে সদর উপজেলার চন্ডিদাসগাতি গ্রাম থেকে হতাহতদের উদ্ধার করা হয়। শিশু লিমনের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। আর তার মা লিপি খাতুনকে (৩২) একই হাসপাতালে পুলিশ হেফাজতে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

এসআই আলিম আরও জানান, শিশুটির মা লিপি খাতুনের মাথায় সমস্যা আছে। মাঝে মধ্যেই তিনি অস্বাভাবিক আচরণ করতেন। চন্ডিদাসগাতিতে বাবার বাড়িতে থাকা অবস্থায় শুক্রবার সন্ধ্যায় তিনি নিজের সন্তান লিমনকে বাড়ির পাশের একটি জমিতে নিয়ে গিয়ে পুরুষাঙ্গ কেটে হত্যা করেন। এরপর নিজের পেটে ছুরিকাঘাত করে নিজেও আত্মহত্যার চেষ্টা করেন।

২০০৭ সালে কামারখন্দ উপজেলার কোনবাড়ি গ্রামের ইমরুল কায়েসের সাথে লিপি খাতুনের বিয়ে হয়। তাদের সংসারে ১১ বছর বয়সী আরও একটি মেয়ে রয়েছে। এ ঘটনায় শিশুটির চাচা ওমর ফারুক বাদী হয়ে রাতেই থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।