সবাইকে নিয়েই উন্নতি, মোদির সঙ্গে সাক্ষাতের পর মোমেন

65

ঢাকায় সফররত ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বৈঠক করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। বৈঠকে এই অঞ্চলে কানেক্টিভিটি বাড়ানোর ওপর জোর দিয়েছেন তিনি। শুক্রবার (২৬ মার্চ) রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর আব্দুল মোমেনের এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠক শেষে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা অত্যন্ত আনন্দঘন পরিবেশে আলাপ করেছি। বিশেষ করে বাংলাদেশের ৫০ বছর পূর্তি উৎসব, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী, এলডিসি থেকে আমাদের উত্তরণ, ভারতের সঙ্গে আমাদের ৫০ বছরের কূটনৈতিক সম্পর্ক সব কিছু মিলিয়ে এবং বঙ্গবন্ধুকে যে গান্ধী পুরস্কার দেওয়া হয়েছে এসব বিষয়ে আলোচনা হলো।

মোমেন বলেন, ‘দ্বিপাক্ষিক বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। কানেক্টিভিটি নিয়ে আলোচনা করলাম। তাকে (মোদি) বলেছি, আমরা যেভাবে চলছি, আগামী ৫০ বছরে এই অঞ্চলে সোনালী অধ্যায় রচনা করতে পারব। এতে সবার মঙ্গল হবে। এটা সম্ভব হবে যদি শক্ত নেতৃত্ব থাকে। এক দেশ উন্নত হলে লাভ নেই, সবাইকে নিয়ে উন্নতি করতে হবে।’

রোহিঙ্গা প্রসঙ্গে আলোচনা হয়েছে জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গা ইস্যুতে কথা হয়েছে। তারা (ভারত) সিকিউরিটি কাউন্সিলের সদস্য হয়েছে, তারা যেন এ ব্যাপারে উদ্যোগ নেন। এছাড়াও করোনা সহযোগিতা নিয়েও আলাপ হয়েছে বলে জানান মোমেন।

প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার আমন্ত্রণে আজ সকালে দুই দিনের সফরে ঢাকায় আসেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বিমানবন্দরে শেখ হাসিনা মোদিকে স্বাগত জানান। বিমানবন্দরের আনুষ্ঠানিকতা শেষে সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে বীর শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান ভারতের প্রধানমন্ত্রী। সেখানে থেকে তার সফরকালে অবস্থান করা সোনারগাঁও হোটেলে আসেন। সেখানে প্রথমে বিরোধী দল ও ১৪ দলের নেতারা তার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

বর্তমানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী জাতীয় প্যারেড স্কয়ারে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত রয়েছেন। সেখানে বক্তব্য দিবেন তিনি। সন্ধ্যায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শেখ হাসিনার সঙ্গে যৌথভাবে বঙ্গবন্ধু-বাপু ডিজিটাল প্রদর্শনীর উদ্বোধন করবেন মোদি।