সেঞ্চুরির জবাবে সেঞ্চুরি, রেকর্ড গড়ে পাকিস্তানকে ধবলধোলাই

30

জেমস ভিঞ্চের প্রথম আন্তর্জাতিক সেঞ্চুরিতে ইংল্যান্ড পাকিস্তানের বিপক্ষে শেষ ওয়ানডে ৩ উইকেটে জিতেছে এবং সিরিজে ৩-০ ব্যবধানে ধবলবোলাই করেছে।

৯৫ বলে ১০২ রানের নজরকাড়া ইনিংস খেলেন ডানহাতি ব্যাটসম্যান। ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে লুইস গ্রেগরির সঙ্গে ১২৯ রানের জুটি গড়েন সেখানেই ইংল্যান্ড জয়ের ভিত পেয়ে যায়। গ্রেগরি ৭৭ রান করে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন।

এদিকে এজবাস্টনে রেকর্ড রান তাড়া করে জিতেছে স্বাগতিকরা। অধিনায়ক বাবর আজমের ১৫৮ রানের ইনিংসে ভর করে ৯ উইকেটে ৩৩১ রান তোলে পাকিস্তান। ইংল্যান্ড ১২ বল আগে লক্ষ্যে পৌঁছে যায়। রান তাড়ায় এজবাস্টনে ২৮০ রানের বেশি করা রেকর্ড নেই। এবার স্বাগতিকদের রান গেল চূড়ায়।

বাবর আজম ও মোহাম্মদ রিজওয়ান তৃতীয় উইকেট জুটিতে ১৭৯ রান জমা করেন। যেখানে ৫৮ বলে ৭৪ রান করেন রিজওয়ান। এছাড়া ইমাম-উল-হকের ব্যাট থেকে আসে ৫৬ রান। প্রথম দুই ম্যাচে ব্যর্থ হওয়া বাবর এ ম্যাচে হয়তো পণ করেই নেমেছিলেন ভালো কিছু করবেন। তেমন কিছুই করলেন তিনি।

মুগ্ধতা ছড়িয়ে ক্যারিয়ার সেরা ১৫৮ রান করেন। ১৩৯ বলে ১৪ চার ও ৪ ছক্কায় সাজান ইনিংসটি। এর আগে ৮২ ইনিংসে তার ক্যারিয়ার সেরা ছিল ১২৫ রান ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে। এবার ১৪তম সেঞ্চুরির রানকে অন্য উচ্চতায় নিয়ে গেলেন তিনি। তবে শেষ পর্যন্ত তার মুখের হাসি থাকেনি।

ভিঞ্চ সেঞ্চুরির জবাব দিয়েছেন সেঞ্চুরি করে। ক্যারিয়ারের প্রথম আন্তর্জাতিক সেঞ্চুরিতে ম্লান করে দেন পাকিস্তানের বিশাল পুঁজি। ৯৫ বলে ১০২ রানের ইনিংসটি সাজান ১১ বাউন্ডারিতে। এছাড়া ওপেনিংয়ে সল্ট ৩৭, তিনে নেমে জ্যাক ক্রাউলি ৩৯, বেন স্টোকস ৩২ রান করেন। শেষ দিকে লুইস গ্রেগরি ৭৭ রান করেন ৬ চার ও ৩ ছক্কায়। তাকে ফিরিয়ে পাকিস্তান ম্যাচ জমিয়ে তুললেও শেষ হাসিটা হাসতে পারেনি।

ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হয়েছেন ভিঞ্চ। তিন ম্যাচে ৯ উইকেট নিয়ে সিরিজ সেরা সাকিব মাহমুদ।