১৭ বছরের ক্যারিয়ারের ইতি টানলেন টেলর

13

২০০৪ সালের এপ্রিলে মাত্র ১৮ বছর বয়সে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে দিয়ে জিম্বাবুয়ের জার্সিতে অভিষেক হয় ব্রেন্ডন টেলরের। এরপর নিজের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে অনেক চড়াই-উতরাই পার করেছেন এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। ১৭ বছরের ক্যারিয়ারে হয়ে উঠেছেন জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটের পোস্টারবয়। এবার নিজের পথচলা থামিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন টেলর। রোববার আবেগী বার্তায় ক্রিকেটকে বিদায় বলে দিলেন ৩৫ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার।

আজ (সোমবার) আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ৩ ম্যাচ সিরিজের শেষ ওয়ানডে ম্যাচ খেলতে নামবে জিম্বাবুয়ে। এই ম্যাচ খেলেই জিম্বাবুয়ের জার্সি তুলে রাখবেন টেলর। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি পোস্ট শেয়ার করে সেটি জানিয়েছেন তিনি।

ইন্সটাগ্রামে টেলর লেখেন, ‘দুঃখ ভারাক্রান্ত হৃদয় নিয়ে আমি ঘোষণা করছি যে সোমবার আমার প্রিয় দেশের হয়ে শেষ খেলা হবে। ১৭ বছর ক্যারিয়ারের চড়াই-উতরাই দেখেছি। যা আমাকে বিনয়ী হতে শিখিয়েছে, আমাকে বারবার মনে করিয়েছে কত ভাগ্য করে এত বছর এই অবস্থানে ছিলাম আমি। নিজের দেশের জার্সি গায়ে মাঠে নেমে নিজের সেরাটা দেওয়া।’

সঙ্গে আরও লিখেছেন টেলর ‘জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট, ধন্যবাদ আমাকে সুযোগ দেবার জন্য। আমি আশা করি আমি আমাদের দেশকে কিছুটা হলেও গর্বিত করেছি। ২০০৪ সালে অভিষেকের পর থেকে সবসময় আমার লক্ষ্য ছিল দলকে সেরা অবস্থানে রেখে যাওয়া। আশা করি, আমি তা করতে পেরেছি।’

অ্যান্ডি ফ্লাওয়ারের (৬৭৮৬) পর এখন পর্যন্ত ২০৪ ওয়ানডে খেলা টেলর জিম্বাবুয়ের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান (৬৬৭৭) সংগ্রাহক। ওয়ানডেতে জিম্বাবুয়ের হয়ে সর্বোচ্চ ১১টি সেঞ্চুরি তার দখলে। ৩৪ টেস্টে ২৩২০ ও ৪৫টি টি-টোয়েন্টিতে ৯৩৪ রান করেছেন তিনি। ২০০৭ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তার ব্যাটেই অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়েছিল জিম্বাবুয়ে। ২০১১ থেকে ২০১৪ পর্যন্ত জিম্বাবুয়ে দলের অধিনায়কত্ব করেছেন। তবে কলপ্যাক চুক্তিতে নটিংহ্যাম্পশায়ারে খেলতে যাওয়ায় তিন মৌসুম তাকে পায়নি জিম্বাবুয়ে।